Press "Enter" to skip to content

সিনেমা ও সিরিয়ালের জনপ্রিয় অভিনেত্রী দেবদ্যুতি দেবনাথ শীঘ্রই পরিণয় সূত্রে আবদ্ধ হতে চলেছেন

Spread the love

নিউজ স্টারডম: কলকাতা,১৪ই জানুয়ারি ২০২০ একটা শ্যুটিং লোকেশনে কথা হচ্ছিল দেবদ্যুতি র সাথে। দেবদ্যুতি বর্তমানে সিনেমার শ্যুটিং নিয়ে খুবই ব্যস্ত। কথায় কথায় জানালেন আর কিছু দিনের মধ্যেই পরিণয় সূত্রে আবদ্ধ হতে চলেছে। আরো জানালেন জীবনে কাজটাকে যেমন নিষ্ঠা ও ভালোবাসা দিয়ে করতে হবে ঠিক তেমনই সংসার জীবনও নিষ্ঠা ও ভালোবাসা দিয়ে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল বিয়ের আগের অনুভূতিটা কেমন? উত্তরে ছিল বেচেলার জীবন যেমন হয়।
আর কি, গল্ফ গ্রিনে থাকতাম শ্যুটিংয়ের কারনে। বন্ধু বান্ধব,কাজেই কাটত জীবন। বিয়েতে কি সাজে দেখা যাবে? জিজ্ঞাসা করাতে ও জানালো, বাঙালী তাই একদমই বাঙালীআনা। প্রশ্নছিল:-পাত্র পছন্দ করে দিল কে বাবা-মা নাকি প্রেম ?:- বরাবরই ভালো লাগা বা মন্দলাগাটা একান্ত নিজের তাই পাএ টা ও নিজেরই পছন্দের অবশ্য পাপা-মা আপত্তি করেনি।

বিয়ের পরেও কি তোমাকে সিনেমায় দেখা যাবে?দেবদ্যুতি জানাল, একদম,কাজটা আমার “নিজের” প্রথম সন্তানের মতো …
“নিজের ” বলার কারণ পরিবারের কেউই আমার এই প্রফেশনের সঙ্গে যুক্ত নয় তাই যুদ্ধটা একারই ছিল। অনেকটা মা দুগ্গার সন্তান গনেশ ঠাকুরের মতো আর কি! আর আমার পরিবার এবং আমার হবু স্বামী খুবই প্রেরণা দেয় এই অভিনয়ের পেশায়। মধুচন্দ্রিমায় কোথায় যাওয়ার ইচ্ছে? উত্তরে জানালো এখনও কোনো প্ল্যান করা হয়নি এপ্রিল অবধি দুজনেরই খুব কাজের চাপ, তারপর হয়তো সুইজারল্যান্ড অথবা মালদ্বীপের কোনো একটা জায়গায় যাবো এখনো প্লান করা হয়ে ওঠেনি। হাসতে হাসতে এই প্রতিবেদক কে জানালো প্ল্যান হলে সবার আগে আপনাকে খবর দেব। এর পরের প্রশ্ন ছিল, বিয়ের আগের কোন কোন জিনিস গুলো বিয়ের পরে মিস করবে বলে মনে হচ্ছে? বিয়ে করলে যে মানুষটা বদলে যায় এই কথায় আমি একদমই বিশ্বাসী নই। কিন্তু দায়িত্ব কর্তব্য বাড়ল, তাই নিজেকে এবং পরিবারকে ভালো রাখার সাথে সাথে সবাই কে ভালো রাখতে চাই। প্রতিবেদকের শেষ প্রশ্ন ছিল হবু স্বামীর মধ্যে তোমার কোন কোন জিনিসে মিল খুঁজে পাও? উত্তরে মুচকি হাসি দিয়ে জানালো মিল হলে হয়তো চুম্বক সেম মেরু কাছাকাছি এলে যা হাওয়ার তাই হত। তাই আমরা একটু বিপরীত আর কি!

More from GeneralMore posts in General »

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *