Press "Enter" to skip to content

শ্যাম সুন্দর কোং জুয়েলার্স- এর ‘শুভ অক্ষয় তৃতীয়া উৎসব’…..।

Spread the love

*৩০ এপ্রিল থেকে ১১ মে ২০২৪ পর্যন্ত শ্যাম সুন্দর কোং জুয়েলার্স উদযাপন করছে শুভ অক্ষয় তৃতীয়া উৎসব ।*

নিজস্ব প্রতিনিধি : আগরতলা, ২৫, এপ্রিল, ২০২৪। অক্ষয় তৃতীয়া দিনটিকে হিন্দু ধর্মে অত্যন্ত শুভ দিন হিসেবে মনে করা হয়। ‘অক্ষয়-তৃতীয়া’, যার অর্থ হলো ‘অফুরন্ত সম্পদের তৃতীয় দিন’। এটি একটি অত্যন্ত শুভ উপলক্ষ কারণ এই দিনে অনেকগুলি ঐশ্বরিক ঘটনা ঘটেছিল।

মহাভারত অনুযায়ী, এই দিনে পাণ্ডবরা যখন বনবাসের উদ্দেশ্যে যাত্রা করছিলেন তখন ভগবান শ্রীকৃষ্ণ দ্রৌপদীর হাতে অক্ষয় পাত্র তুলে দিয়েছিলেন। এই অক্ষয় পাত্র কখনও খালি হত না। তা সবসময়ই খাবারে পব়িপূর্ণ হয়ে যেত। এই দিনেই পুষ্টি ও অন্নের দেবী ‘দেবী অন্নপূর্ণা’ জন্মগ্রহণ করেছিলেন। কুবের’কে সম্পদের দেবতা হিসাবে এই দিনেই স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছিল। এই দিনেই পবিত্র গঙ্গা নদী পৃথিবীতে নেমে এসেছিল। কিংবদন্তি অনুসারে, এই দিনেই মুনি বেদব্যাস গণেশকে মহাভারত বলতে শুরু করেন আর তাই শুনে গণেশ মহাভারত মহাকাব্য লিখতে শুরু করেন।

এই সবকিছুই খুবই তাৎপর্যপূর্ণ।

সেই অনুযায়ী এই দিনটি অত্যন্ত শুভ। অক্ষয় তৃতীয়ায় দেবী লক্ষ্মীর পুজোরও বিশেষ তাৎপর্য রয়েছে। তাই এই দিনে সোনা, হিরের গয়না কেনাও শুভ বলেই ধরা হয়। যাতে সেই গয়নার চমকের মতো পরিবারের সুখ, সমৃদ্ধি, সৌভাগ্যও সারা বছরের মতো সঙ্গী হয়।

প্রতিবছরের মতো এবারও শ্যাম সুন্দর কোং জুয়েলার্স শুভ অক্ষয় তৃতীয়া উদযাপন করছে। যেখানে গ্রাহকরা এই প্রতিষ্ঠানের তরফ থেকে বিশেষ অফার যেমন পাবেন তেমনই সোনা ও হিরের নতুনত্ব ও অভিনব বিশাল সম্ভার থেকে নিজেদের পছন্দসই গয়না কিনে এই উৎসবের আনন্দকে বহুগুণে বাড়িয়ে তুলতে পারেন।
শ্যাম সুন্দর কোং জুয়েলার্স ‘শুভ অক্ষয় তৃতীয়া উৎসব’ উপলক্ষে যেসব অফার রেখেছে :

যে কোনো গয়নার দোকান থেকে কেনা পুরোনো হলমার্ক সোনার গয়নার বদলে নতুন গয়না কেনার ক্ষেত্রে থাকছে ১০০% এক্সচেঞ্জ ভ্যালু।

প্রতিটি কেনাকাটায় থাকছে নিশ্চিত উপহার।

সোনার গয়না কেনাকাটার ক্ষেত্রে প্রতি গ্রামে থাকছে ২৭৫ টাকা ছাড়।

হিরের গয়না তৈরির মজুরিতে থাকবে ১০০% ছাড়।

প্রতিদিনের লাকি ড্র তে থাকবে সোনার কয়েন।

মেগা ড্র হিসেবে থাকছে ৩টি স্কুটি জেতার সুযোগ।

সব মিলিয়ে অক্ষয় তৃতীয়ায় গ্রাহকদের জন্য অনেক আকর্ষণীয় উপহারের ডালি সাজিয়ে রাখছে শ্যাম সুন্দর কোং জুয়েলার্স।
এছাড়া সোনায় সোহাগা (সোনা ও হিরের গয়না কেনাকাটার জন্য স্পেশাল ডিসকাউন্ট স্কিম) , সাধ্যের মধ্যে চোখ ধাঁধানো হিরের গয়নার সম্ভার যেমন থাকছে তেমনি জিএসআই ও আইজিআই সার্টিফাইড যুক্ত গ্রহরত্ন, রুপো ও সোনার কয়েন এবং বাসনপত্রও থাকবে।

এছাড়া অনলাইন পরিষেবাতেও এই সব অফারের সুযোগ গ্রাহকরা পাবেন।
শুভ অক্ষয় তৃতীয়া উপলক্ষ্যে, আজ প্রেস প্রিভিউতে টলিউড তারকা অঙ্কুশ ও ঐন্দ্রিলা এই বছরের অক্ষয় তৃতীয়ার সোনার ও হিরের সম্ভারের উন্মোচন করেন। তাঁদের উজ্জ্বল উপস্থিতি দিনটিতে এক বিশেষ মাত্রা যোগ করেছিল।
অঙ্কুশ এক্সক্লুসিভ মেন’স ক্লাব কালেকশনের যে রিস্টলেট আর গলার চেইন পরেছিলেন তা দেখিয়ে আনন্দের সঙ্গে বলেন, ‘আমি এখন পর্যন্ত যা গয়না দেখেছি তার থেকে এই রিসলেট ও চেইন একেবারে আলাদা। আমি এগুলো পরতেও খুব স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করি। কারণ এই ধরনের গয়না আমার ব্যক্তিত্বকে এক অন্য মাত্রায় পৌছে দেয়।’

ঐন্দ্রিলা বলেন, ‘আমার মা এবং আমি শ্যাম সুন্দর কোং জুয়েলার্সের নিয়মিত গ্রাহক। আমার মা ঐতিহ্যবাহী সোনার গহনা ‘শক্তিরূপিনী’ কালেকশনটি ভীষণ পছন্দ করেন। আমি আদিকৃতি, বিষ্ণুপুর এবং সমুদ্র’ র মতো এক্সক্লুসিভ ডিজাইন, হ্যান্ড ক্রাফটেড সোনার গয়না ভীষণ পছন্দ করি।’ ঐন্দ্রিলা আরো বলেন, ‘আজ যে হিরের নেকলেসটা আমি পড়ে রয়েছি এটাও এক্সক্লুসিভ কালেকশন।’
শ্যাম সুন্দর কোং জুয়েলার্স- এর কর্ণধার রূপক সাহা বলেন, ‘আমরা সবাই জানি, সোনা খুবই শুভ। তাই এরকম শুভ দিনে সোনা কিনে তার উজ্জ্বল ছটায় আমাদের জীবন, পরিবার পব়িপূর্ণ করতে সকলেই চাই। এতে পরিবারে সৌভাগ্য ও সমৃদ্ধি আসে।’
এই প্রতিষ্ঠানের আরেক কর্ণধার অর্পিতা সাহা জানান, ‘এবছর অক্ষয় তৃতীয়ায় হিরে ও সোনার নতুন নতুন কালেকশনে আমাদের শোরুম ঝলমল করছে। এছাড়া প্রতিবছরের মতো প্রচুর উপহার ও অফারও থাকছে।’

রূপক বাবু উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন শুভ অক্ষয় তৃতীয়া অফারটি আগামী ৩০ এপ্রিল থেকে ১১ মে পর্যন্ত শ্যাম সুন্দর কোং জুয়েলার্স – এর ত্রিপুরার আগরতলা ও উদয়পুর শোরুম এবং কলকাতার (গড়িয়াহাট, বেহালা ও বারাসাত) সবকটি শোরুমে চলবে।
এছাড়া শনি ও রবিবার সব শোরুমই পুরো দিন খোলা থাকবে।
অর্পিতা দেবী বলেন দেবী লক্ষীর আশীর্বাদে আপনাদের জীবনও উজ্জ্বল হয়ে উঠুক !!

More from BusinessMore posts in Business »
More from JewlleryMore posts in Jewllery »

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *