Press "Enter" to skip to content

লেনিন ছিলেন একজন সৃজনশীল ভাবুক, দার্শনিক ও সংগঠক, নির্বাসনে থাকাকালীন তিনি ৩০টি গ্রন্থ রচনা করেছিলেন……..

Spread the love

———জন্মদিনের শ্রদ্ধাঃ কমরেড লেনিন——–

বাবলু ভট্টাচার্য: ঢাকা, সাম্রাজ্যবাদী অর্থনীতির যুগে মার্কসবাদের সৃজনশীল বিকাশ ঘটিয়ে অর্থনৈতিকভাবে পিছিয়ে পড়া রাশিয়ার মতো একটি দেশে প্রথম সফল সমাজতান্ত্রিক বিপ্লব সংগঠিত করার নেতৃত্ব দেন কমরেড লেনিন। গঠিত হয় সমাজতান্ত্রিক রাষ্ট্র সোভিয়েত ইউনিয়ন। সমাজতান্ত্রিক ব্যবস্থার সাময়িক বিপর্যয় সত্ত্বেও সমাজতান্ত্রিক সোভিয়েত ইউনিয়ন শ্রমজীবী মানুষের ক্ষমতায়ন ও কল্যাণে বিশ্বের শোষিত, নিপীড়িত, মুক্তিকামী মানুষের সামনে যে অসামান্য নজির তুলে ধরেছিল, তা আজও উজ্জ্বল ও অম্লান হয়ে রয়েছে। তার পুরো নাম ভ্লাদিমির ইলিচ উলিয়ানভ। সাইবেরিয়ার লেনা নদীর নামানুসারে তিনি নিজের নাম রাখেন ‘লেনিন’। লেনিনের বাবা ল্য নিকোলভিচ উলিয়ানভ ছিলেন একজন বিদ্যালয় পরিদর্শক এবং গণতন্ত্র ও নিয়মতান্ত্রিকতার কট্টর সমর্থক। মা ছিলেন শিক্ষিকা।

১৮৮৭ সালে অনার্সসহ স্নাতক ডিগ্রি লাভ করে লেনিন কাজান বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগে মাস্টার্সে ভর্তি হন। ছাত্রদের বিপ্লবী আন্দোলনে নেতৃত্ব দেওয়ায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাকে বহিষ্কার করে। ১৮৯১ সালে তিনি আইন পাস করে সামারাতে আইন ব্যবসা শুরু করেন। এরপর তিনি সেন্ট পিটার্সবার্গ চলে আসেন। ১৮৯৫ সালে লেনিন কারারুদ্ধ হন এবং ১৮৯৭ সালে তাকে পূর্ব সাইবেরিয়ার এক নির্জন স্থানে নির্বাসিত করা হয়।নির্বাসনে থাকাকালীন লেনিন ৩০টি গ্রন্থ রচনা করেছিলেন। ১৯০০ সালে নির্বাসন থেকে মুক্তিলাভ করেন। এই সময় তিনি জুলিয়াস মার্টয়ের সঙ্গে মিলিত হয়ে দেশের বাইরে থেকেই ‘ইস্ক্রা’ (স্ফুলিঙ্গ) নামক একটি সংবাদপত্র প্রকাশ করেন। পাশাপাশি তিনি সর্বহারা শ্রেণি, তাদের অধিকার প্রভৃতি নিয়ে কিছু পত্রপত্রিকায় লেখেন ও পুস্তক রচনা করেন। রাশিয়ান সোশ্যাল ডেমোক্র্যাটিক লেবার পার্টি গঠনের সময় ভ্লাদিমির ইলিচ উলিয়ানভ ‘লেনিন’ ছদ্মনাম গ্রহণ করেন। ১৯০২ সালে তিনি ‘কি করতে হবে’ শীর্ষক একটি পুস্তক রচনা করেন, যাতে বলা হয়— ‘বিপ্লবের নেতৃত্ব এমন এক অনুশাসিত দলের হাতে থাকা উচিত, যাদের প্রধান কাজ হবে অধিকারের জন্য লড়াই করা।’ লেনিন ছিলেন একজন সৃজনশীল ভাবুক, দার্শনিক ও সংগঠক। বিখ্যাত লেখক ও দার্শনিক প্লেখানভের কাছ থেকে তিনি মার্কসবাদ শিখেছিলেন। তিনি ইউরোপের অন্যান্য বিকশিত ধনতান্ত্রিক দেশের সঙ্গে তুলনায় পিছিয়ে থাকা দেশ রাশিয়ায় মার্কসবাদকে চমৎকারভাবে প্রয়োগ করেন এবং সফল হন। কিন্তু সময়ের পরীক্ষায় তার সমাজতান্ত্রিক বিপ্লব ইতিহাসে দীর্ঘকাল স্থায়ী হয়নি। সোভিয়েত ইউনিয়নের প্রথম রাষ্ট্রপ্রধান হয়েছিলেন লেনিন।

ভ্লাদিমির ইলিচ উলিয়ানভ লেনিন ১৮৭০ সালের আজকের দিনে (২২ এপ্রিল) রাশিয়ার সিমর্বস্ক শহরে জন্মগ্রহণ করেন।

More from GeneralMore posts in General »

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *