Press "Enter" to skip to content

ভ্যাকসিকন ২০২০…..

Spread the love

গোপাল দেবনাথ/সুজিৎ চট্টোপাধ্যায়: কলকাতা দক্ষিণ পূর্ব কলকাতার এক সাত তারা হোটেলে অনুষ্ঠিত হচ্ছে দুদিন ব্যাপী স্বাস্থ্য বিষয়ক সেমিনার ভ্যাকসিকন ২০২০। মূলত প্রতিষেধক যোগ্য ওষুধ এবং স্বপ্নের বাস্তবায়ন শীর্ষক সেমিনারে অংশ নিচ্ছেন ভারতসহ বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, নেপাল, ভুটান ও মালদ্বীপের প্রায় ৫০০চিকিৎসক বিশেষজ্ঞ ।

অনুষ্ঠানের বিরতিতে সাংবাদিকদের সঙ্গে ইন্ডিয়ান পেডিয়াট্রিকস্ এর জাতীয় সভাপতি ডাঃ বকুল জয়ন্ত পারেখের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেন এই অনুষ্ঠানের অন্যতম কর্মকর্তা ড: অতনু ভদ্র। ড:পারেখ বলেন, আমাদের এই অনুষ্ঠানে প্রতিষেধকযোগ্য রোগ নিয়ে নিজেদের অভিজ্ঞতা বিনিময় করলেও এই মুহূর্তে সবচেয়ে
আলোচিত বিষয় নোভেল করোনা ভাইরাস।

সত্যি বলতে কি ,এখনই আমাদের কাছে এই রোগ প্রতিরোধের যথার্থ চিকিৎসা নেই। তবে দ্রুত এই ভাইরাসকে পরাস্ত করতে ওষুধ আবিষ্কার হতে চলেছে। মুস্কিল হচ্ছে ,রোগটি যতটা ক্ষতিকারক তার চেয়ে বেশি আতঙ্ক সৃষ্টি করেছে। ১০বছর আগে হয় সার্স। সে ছিল ভয়ানক। মৃত্যুর হার ছিল অনেক বেশি। কিন্তু করোনা ভাইরাস দ্রুত ছড়ালেও মৃত্যুর হার কিন্তু অনেক কম। এই ভাইরাস ঠান্ডায় বেশি সজীব থাকে। গরম পড়ার সঙ্গে সঙ্গে প্রকোপ কমবে। এই মুহূর্তে আমাদের নজর আপনার ঠান্ডাজনিত অসুখ দীর্ঘদিন ভোগাচ্ছে কিনা? দ্বিতীয়তঃ আপনি সম্প্রতি বিদেশ থেকে ফিরেছেন কিনা? তৃতীয়ত, আপনার পরিচিত কেউ যিনি বিদেশ থেকে এসেছেন তার সাথে মেলামেশা করছেন কিনা? সেক্ষেত্রে আমরা সন্দেহজনক হিসেবে আপনাকে গভীর পর্যবেক্ষণে রেখে কিছু পরীক্ষানিরীক্ষা করবো।

সাধারণ মানুষকে বলবো কিছুদিন বেশি জনসমাগম হয় এমন স্থান এড়িয়ে চলুন। ঘনঘন হাত সাবান বা স্যানিটাইজার দিয়ে ধুয়ে নিন। হাঁচি কাশি হলে মুখে রুমাল চাপা দিন। যারা সর্দিকাশি বা শ্বাসকষ্টে ভুগছেন তাঁরা ছাড়া কারও মাস্ক পড়ার দরকার নেই। আমি বলবো এই ভীতি অভিশাপ নয়, আশির্বাদ। আমরা জীবিকার ব্যস্ততায় নিজের পরিবারকে সময় দিই না। এখন বরং কিছুদিন বাড়িতে থেকে পরিবারকে সময় দিন। ভিড়ের মাঝে যাবেন না।

খাদ্যের ক্ষেত্রে কিছুদিন সি ফুড এড়িয়ে চলুন। মনে রাখবেন চিনে সাপ ও বাদুড় থেকেই এই ভাইরাস ছড়িয়েছে। মোটামুটি এই ভাইরাসের সতেজতা থাকে ১৪দিন।
সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন আরও দুই নবীন চিকিৎসক ফুসফুস বিশেষজ্ঞ ড:তরঙ্গ কুলকার্নি ও ড:শুভম শর্মা। এরা বলেন, অযথা আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকুন।হাতের কাজ শেষ করেই স্যানিটাইজার দিয়ে হাত ধুয়ে নিন।

বিদেশ থেকে সদ্য আসা আত্মীয় পরিজন বন্ধুবান্ধবদের থেকে দূরত্ব বজায় রেখে মেলামেশা করুন। তাদের সর্দিকাশি হলে দ্রুত ডাক্তারের কাছে নিয়ে যান। প্রশ্ন ছিল, করমর্দনে নিষেধ করা হচ্ছে। তবে যারা সদ্য বিয়ে করেছেন বা প্রেমিক প্রেমিকারা কি একে অপরের হাতে হাত রেখে সুখস্বপ্ন রচনা করতে পারবেন না? চুম্বনে বিরত থাকবেন? নবীন ডাক্তার বাবুরা হেসে বললেন, না, হাতে হাত রেখে চলুন, তবে বার বার হাত ধুয়ে নেবেন স্যানিটাইজার দিয়ে। সর্দি কাশি না থাকলে চুম্বনও করুন। কোনো বাধা নেই। শুধু বলবো এই সময়ে একটু বেশি পরিষ্কার পরিছন্ন থাকুন ।

More from GeneralMore posts in General »

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *