Press "Enter" to skip to content

বাসমতী চালের ন্যুনতম রপ্তানী মূল্য বাড়ায় বিপাকে দেশের চাষীরা….।

Spread the love

নিজস্ব প্রতিনিধি : কলকাতা, ১৪ অক্টোবর, ২০২৩। সম্পতি কেন্দ্রীয় সরকার বাসমতি চাল বিদেশে রপ্তানীর ক্ষেত্রে ন্যুনতম রপ্তানী মূল্য বাড়িয়েছে। পাশাপাশি নন বাসমতি সিদ্ধ চালের উপর ২০ শতাংশ রপ্তানী কর বাড়ানো হয়েছে এবং আতপ চাল রপ্তানীর উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। এর ফলে প্রায় আশি শতাংশ চাল রপ্তানী বন্ধ হয়ে গেছে বলে জানিয়েছেন
চাল রপ্তানীকারক সংস্থাগুলি।
এ উপলক্ষে ইন্ডিয়ান রাইস এক্সপোর্টার ফেডারেশনের উদ্যোগে কলকাতায় চাল রপ্তানীকারক সংস্থার প্রতিনিধিরা নিয়ে এক আলোচনা সভায় আয়োজন করা হয়। আলোচনার উদ্বোধন করেন কৃষিমন্ত্রী শোভন দেব চট্টোপাধ্যায়। তিনি এই সুগন্ধী চাল বিদেশে রপ্তানীর ক্ষেত্রে সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দেন।
ইন্ডিয়ান রাইস এক্সপোর্টার ফেডারেশানের জাতীয় সভাপতি ডঃ প্রেম গর্গ বলেন, তিনি কয়েকদিন আগেই কেন্দ্রীয় বাণিজ্য ও শিল্পমন্ত্রী পীযূষ গোয়েলের কাছে বাসমতি চালের নুন্যতম রপ্তানী মুল্য প্রতি কুইন্টাল ১২০০ মার্কিন ডলার থেকে কমিয়ে আনার আবেদন করেছিলেন। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জানিয়েছিলেন তা কমিয়ে ৮৫০ করা হবে। কিন্তু তা করা হয়নি। এর ফলে
চাল রপ্তানীর ক্ষেত্রে তারা নানা সমস্যায় পড়ছেন।
প্রেম গর্গ জানান, রপ্তানি কমে যাওয়ায় ভারতের জাতীয় অর্থনীতিতে প্রভাব পড়বে।
এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আই আর ই এফ এর রাজ্য সভাপতি রাহুল খৈতান, ডিজি সঞ্জীব আহুজা, রাজ্য সম্পাদক সুনীল আগরওয়াল প্রমুখ।
সুনীল আগরওয়াল উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন, বাসমতি চালের ন্যূনতম রপ্তানি মূল্য বৃদ্ধি পাওয়ায় একদিকে যেমন তাদের বিক্রি অনেকটা কমেছে, পরোক্ষভাবে রাইস মিল গুলিতে উৎপাদন বন্ধ হয়ে গেছে এবং ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে বাংলা সহ দেশের চাষিরা।
নন বাসমতি সেদ্ধ চালের উপর কর বেড়ে যাওয়ায় রাজ্যের চাষিরাও ন্যূনতম বিক্রয় মূল্যে চাল বিক্রি করতে ক্ষতির মুখে পড়েছেন। নতুন শস্য উঠলে তাতেও এর প্রভাব পড়বে বলে দিন মনে করেন।

More from BusinessMore posts in Business »
More from FoodMore posts in Food »

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *