Press "Enter" to skip to content

পাথর প্রতিমা ব্লকের রামগঙ্গা গ্রামে আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়ালো “দ্য বেঙ্গল চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি”।

Spread the love

গোপাল দেবনাথ: ৩০মে,২০২০ গত ২০ শে মে সুপার সাইক্লোন আম্ফানের দাপটে দক্ষিণ ২৪ পরগণার বিস্তীর্ণ অঞ্চল বিপুল ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। কুলপি, গোসাবা, কুলতলি, পাথর প্রতিমা সহ একাধিক ব্লক ভীষণভাবে ক্ষতির সম্মুখীন হয়। এই সকল ব্লকের দুর্গতদের পাশে দাঁড়ালো “দ্য বেঙ্গল চেম্বার অফ কমার্স”।পাথর প্রতিমা ব্লকের রামগঙ্গা গ্রামে ত্রাণ নিয়ে পৌঁছালেন চেম্বারের আধিকারিকেরা। তাদের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্ত স্থান গুলিতে দুর্গতদের হাতে বিশেষ তৎপরতার সাথে মোট ১০ লক্ষ টাকার ত্রাণ পৌঁছে দেওয়া হয়। দক্ষিণ ২৪ পরগণার জেলা শাসকের তত্বাবধানে এবং স্থানীয় বি.ডি.ও.-র উপস্থিতিতে ক্ষতিগ্রস্থ ব্লকটিতে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

ত্রাণ হিসেবে দেওয়া হয়-

১) ৫০০ টারপুলিন শিট। ২) ৫০০ সোলার লন্ঠন।
৩) ৫০০টি বালতি যার প্রত্যেকটিতে থাকছে ২ লিটার এর ২টি জলের বোতল, বিস্কিট, মুড়ি, চিড়ে, গুড়, শিশুদের জন্য গুঁড়ো দুধ, স্যানিটারি ন্যাপকিন, ও.আর.এস, এবং নুডুলসের প্যাকেট ইত্যাদি। ৪) প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য ওষুধ। চেম্বারের পক্ষ থেকে জানানো হয় “বেঙ্গল চেম্বার সঙ্কটের সময়ে সর্বদা নাগরিকদের পাশে দাঁড়িয়েছে। আমরা বিশ্বাস করি যে এই ধরণের অনভিপ্রেত পরিস্থিতিতে এই সকল দুর্গতদের পাশে থাকা, তাদের প্রতি আমাদের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়া আমাদের একান্ত কর্তব্য”
জানান, দ্য বেঙ্গল চেম্বারের ডিরেক্টর জেনারেল শ্রী শুভদীপ ঘোষ। প্রসঙ্গত তিনি আরও জানান যে এর আগেও ২০০৯ সালে আয়লার সময়েও দ্য বেঙ্গল চেম্বারের পক্ষ থেকে দুর্গতদের পাশে দাঁড়ানো হয়েছিল। সুন্দরবনের প্রত্যন্ত গ্রামগুলিতে ত্রাণ সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হয়েছিল। এছাড়াও সুন্দরবনের বিভিন্ন অঞ্চলে পাণীয় জলের সমস্যা দূর করতে গভীর নলকূপ খননের জন্য আর্থিক সাহায্য করা হয়। এই উদ্যোগে পাশে থাকার জন্য দ্য বেঙ্গল চেম্বার ধন্যবাদ জানায়,
বিক্রম সোলার, টাটা স্টিল ডাউনস্ট্রিম প্রোডাক্টস লিমিটেড, এ টশ এন্ড সন্স (ইন্ডিয়া) লিমিটেড এবং দ্য বেঙ্গল চেম্বারের সদস্যদের।

More from GeneralMore posts in General »

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *