Press "Enter" to skip to content

পশ্চিম ভারতেও ঘূর্ণিঝড় নিসর্গ, গুজরাত – মহারাষ্ট্রে রেড আ্যলার্ট।

Spread the love

মুম্বইয়ে বৃষ্টি গতকাল থেকে শুরু হয়েছে।

শুভদ্যুতি দত্ত: কলকাতা, ৩ জুন২০২০।বাণিজ্যনগরী মুম্বই ১০০ বছর পরে ঘূর্ণিঝড়ের আশঙ্কায় তটস্থ রয়েছে। ইতিমধ্যেই বৃষ্টি শুরু হয়ে গিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আশ্বস্ত করেছেন মুম্বইয়ের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে’কে। শ্রী ঠাকরে জানিয়েছেন, নিরাপদ আশ্রয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। পালঘর জেলাশাসক কৈলাশ সিন্ধে বলেন, উপকূল অঞ্চলের ২১,০০০ মানুষকে সরিয়ে আনা হয়েছে। তবে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার সঙ্গে মাস্ক ও স্যানিটাইজার এবং হাত ধুতে তাদের জন্য ব্যবস্থা করা হয়েছে।

সুউচ্চ ঢেউ আছড়ে পড়ছে দ্বারকার গোমতী ঘাটে।

গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রূপানির সাথে কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী। কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল দমন – দিউ – দাদরা ও হাভেলির প্রশাসক প্রফুল্ল কে প্যাটেল এর সাথেও মোদীর বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়। সবরকম সাহায্যের প্রতিশ্রুতি দিয়ে প্রধানমন্ত্রী জানান, কেন্দ্র বরাবর পাশেই রয়েছে। প্রসঙ্গতঃ ‘নিসর্গ’, এই ঘূর্ণিঝড়ের নাম দিয়েছে বাংলাদেশ। এর পরের ঘূর্ণিঝড় – ‘গতি’, ভারত দিয়ে রেখেছে এই নাম। এদিকে, পশ্চিম ভারতে গুজরাত, মহারাষ্ট্রের উপকূল অঞ্চলকে ফের সতর্ক করা হয়েছে।

নাসা’র পাঠানো নিসর্গ, উপগ্রহ চিত্র।

সেখানকার মৎস্যজীবিদের সাগর থেকে মাছ ধরা বন্ধ রেখেই ফিরে আসতে নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে জরুরিকালীন ভিত্তিতে। অন্যদিকে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ইতিমধ্যেই জরুরিকালীন ভিত্তিতে এই পরিস্থিতিতে মোকাবিলায় সমস্ত পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য সরকারি পর্যায়ে পরামর্শ দিয়েছেন। এক ট্যুইটে তা জানিয়েছেন তিনি। ফলে, উত্তর মহারাষ্ট্রে ও দক্ষিণ গুজরাতে কমলা সতর্কতাও জারি রয়েছে। এ প্রসঙ্গে, এন ডি আর এফ (ডিজি) এস এন প্রধান সাংবাদিকদের জানান, গুজরাতের ৫টি জেলায় ১১টি এবং মহারাষ্ট্রে ১০ টি দল পাঠানো হয়েছে। সামগ্রিকভাবে পরিস্থিতি পর্যালোচনা করা হচ্ছে প্রতিনিয়ত। পশ্চিম উপকূলে ঘূর্ণিঝড় নিসর্গ দুপুরে ঢোকার কথা থাকলেও সকাল থেকেই উদ্বেগ বাড়ছে। এর উৎস আরব সাগর। এবং তীব্র ঘূর্ণিঝড়েই তা পরিনত হবে। মুম্বই, থানে, পালঘর ও রায়গড জেলায় প্রভাব বিস্তার করবে ঘূর্ণিঝড়। ফলে, লাল সতর্কতা জারির পাশাপাশি প্রশাসনের তরফে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। পূর্ব – মধ্য আরবসাগরে ঘনীভূত নিম্নচাপ গভীর নিম্নচাপে পরিনত হয়েছে । এই মুহূর্তে মুম্বই থেকে ১৭৫ কিমি দক্ষিণ ও দক্ষিণ – পশ্চিম, সুরাট থেকে ৪০০ কিমি দক্ষিণ ও দক্ষিণ – পশ্চিম এবং আলিবাগ থেকে ১৩০ কিমি দক্ষিণ ও দক্ষিণ – পশ্চিমে নিসর্গ অবস্থান করছে। এই বার্তা আবহাওয়া দপ্তরের। আগাম পূর্বাভাস অনুযায়ী, বুধবার দুপুরের দিকে তা আছড়ে পড়বে।

মেরিন ড্রাইভ – মুম্বইয়ের ছবি।

ফলে সকাল থেকে নজরে থাকবে দুই রাজ্যের বাসিন্দাদের। ১১০ থেকে ১১০ কিমি বেগে ঐ ঝড় বয়ে যাবে এমন অনুমান। ১২০ কিমি ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে বলে পূর্বাভাস।

More from GeneralMore posts in General »

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *