Press "Enter" to skip to content

নবনীতা দেব সেন এর প্রাণশক্তি ছিল অফুরন্ত। এই শরীর নিয়েই চলে গিয়েছিলেন আলাস্কা। সারা পৃথিবী ঘুরে বেড়িয়েছেন…..।

স্মরণঃ নবনীতা দেব সেন

বাবলু ভট্টাচার্য : অদ্ভুত ছিলেন ভদ্র মহিলা, জীবনে মন ভেঙেছে। শরীরে থাবা বসিয়েছিল কর্কট রোগ। তাও হার মানেননি কখনও। এজমা ছিল। জীবনের শেষদিকে হুইলচেয়ার ছিল সঙ্গী।

প্রাণশক্তি ছিল অফুরন্ত। এই শরীর নিয়েই চলে গিয়েছিলেন আলাস্কা। সারা পৃথিবী ঘুরে বেড়িয়েছেন। নিজের অসুস্থতা বা নিজের সবকিছু নিয়ে মজা করেছেন বারবার কিন্তু হাল ছাড়েন নি কখনও।

এমন পরিবারে ছিলেন যেখানে মা, বাবা, মেয়ে, স্বামী- সবাই বিখ্যাত। পদ্মশ্রী পেয়েছেন। সাহিত্য একাডেমি পেয়েছেন কিন্তু পা মাটিতেই রাখতেন।

যে বাড়িতে থাকতেন, নাম ছিল ‘ভালো-বাসা’। কলম লিখিতেন ‘ভালোবাসার বারান্দা’ নামে।

বিশিষ্ট সাহিত্যিক নবনীতা দেব সেন ১৯৩৮ সালের ১৩ জানুয়ারি কলকাতাযর হিন্দুস্থান পার্কে জন্মগ্রহণ করেন। বাবা নরেন্দ্র দেব ও মা রাধারানী দেবী সে যুগের বিশিষ্ট কবি দম্পতি। একজন বাঙালি কবি, লেখক এবং শিক্ষাবিদ।

ছেলেবেলায় এক বিশেষ সাহিত্যিক ও সাংস্কৃতিক পরিবেশে তিনি বড় হয়েছেন। বাংলা ও ইংরেজি ভাষা ছাড়াও তিনি হিন্দি, ওড়িয়া, অসমীয়া, ফরাসি, জার্মান, সংস্কৃত এবং হিব্রু ভাষাগুলি পড়তে পারতেন। গোখলে মেমোরিয়াল গার্লস, লেডি ব্রেবোর্ণ ও প্রেসিডেন্সি কলেজ, যাদবপুর , হার্ভার্ড, ইণ্ডিয়ানা (ব্লুমিংটন) ও কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা ও গবেষণা করেছেন।

১৯৭৫-২০০২ তিনি যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের তুলনামূলক সাহিত্যের অধ্যাপনা করেন। সেখানে কিছুদিন বিভাগীয় প্রধান হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়াও যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপেরও কিছু বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিজিটিং প্রফেসর ছিলেন। তাকে তুলনামূলক সাহিত্যের একজন বিশিষ্ট অথরিটি মানা হয়।

যাদবপুরে তিনি কবি বুদ্ধদেব বসু ও সুধীন্দ্রনাথ দত্তের স্নেহধন্য ছাত্রী ছিলেন। ১৯৯৯ সালে তিনি সাহিত্য একদেমি পুরস্কার পান তার আত্মজীবনী মূলক রম্যরচনা ‘নটী নবনীতা’ গ্রন্থের জন্যে। এছাড়াও তিনি মহাদেবী বর্মা ও ভারতীয় ভাষা পরিষদ ও অন্যান্য প্রতিষ্ঠান থেকেও বিভিন্ন পুরস্কার পেয়েছেন। ২০০০ সালে উনি পদ্মশ্রী সম্মানে ভূষিত হন।

১৯৫৯ এ তার প্রথম কাব্যগ্রন্থ ‘প্রথম প্রত্যয়’ প্রকাশিত হয় ও প্রথম উপন্যাস ‘আমি অনুপম’ ১৯৭৬ এ। কবিতা, প্রবন্ধ, রম্যরচনা, ভ্রমণ কাহিনি, উপন্যাস মিলে তার প্রকাশিত গ্রন্থ সংখ্যা ৩৮।

প্রসঙ্গত, নবনীতা দেব সেন নোবেল বিজয়ী বিখ্যাত অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেনের প্রাক্তন স্ত্রী। ১৯৬০ সালে তারা বিয়ে করেন। তাদের দুই মেয়ে। বড় মেয়ে অন্তরা সাংবাদিক ও সম্পাদক। ছোট মেয়ে নন্দনা অভিনেত্রী ও সমাজকর্মী।

নবনীতা দেব সেন ২০১৯ সালের আজকের দিনে (৭ নভেম্বর) কলকাতায় মৃত্যুবরণ করেন।

More from GeneralMore posts in General »

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.