Press "Enter" to skip to content

কলকাতা বইমেলা আন্তর্জাতিক বইমেলা হলেও মেলার সিংহভাগ জুড়ে বাংলা বইয়ের বিক্রিই বেশি হয়…..।

Spread the love

নিজস্ব প্রতিনিধি : কলকাতা বইমেলা মানেই বাঙালির চতুর্দশ পার্বণ শুরু। আর সেই পার্বণের মধ্যলগ্নে এই মুহূর্তে আমারা দাঁড়িয়ে আছি।
গত ১৮ই জানুয়ারি থেকে শুরু হয়ে গেছে ৪৭তম আন্তর্জাতিক *কলকাতা পুস্তক মেলা* চলবে আগামী ৩১শে জানুয়ারি পর্যন্ত।
তৃষা মন্ডল ও তারক নাথ মন্ডল বলেন, আমরা বইমেলায় ২০৫ নম্বর এ আছি(মন্ডল বুক স্টল)আপনারা সবাই আসুন, দেখা হবে আমার আপনার সবার প্রিয় মেলা *বইমেলা* ওরফে বলা যেতে পারে *মিলন মেলা*।
কলকাতা বইমেলা‌ বিশ্বের বৃহত্তম অবাণিজ্যিক বইমেলা, কলকাতা বইমেলা আন্তর্জাতিক বইমেলা হলেও মেলার সিংহভাগ জুড়ে বাংলা বইয়ের বিক্রিই বেশি হয়, আর আমরা (তারক নাথ মন্ডল এবং একমাএ কর্ণধার তৃষা মন্ডল) অর্থাৎ মন্ডল বুক স্টল সেই সিংহভাগের একটি অংশ ; বাংলা গল্প থেকে গোয়েন্দা, রান্না থেকে রোমাঞ্চ , আশাপূর্ণা দেবী, সমরেশ মজুমদার, শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায় থেকে আজকের সায়ক আমন , সায়ন্তনী পূততুন্ড সবার গল্প থেকে উপন্যাস আমাদের কাছে পাবেন,, তাই ঘুরতে ঘুরতে ২নং গেটের সামনে ২০৫ এ একবার চলে আসতে হবে।
বাংলার পাশাপাশি প্রচুর ইংরেজি গ্রন্থ প্রকাশক ও বিক্রেতাও এই মেলায় অংশগ্রহণ করেন। এছাড়া হিন্দি, উর্দু, সংস্কৃত ইত্যাদি অন্যান্য ভারতীয় ভাষার বইও এই মেলায় পাওয়া যায়। বিদেশি দূতাবাসগুলিও স্টল বা প্যাভিলিয়ন সাজিয়ে নিজ নিজ দেশে প্রকাশিত বইপত্রের প্রদর্শনী করে থাকে। পশ্চিমবঙ্গ সরকার ও ভারত সরকারের বাংলা প্রকাশনা বিভাগগুলিও এই মেলায় অংশগ্রহণ করে। এছাড়াও ফ্রাঙ্কফুট বইমেলার আদলে প্রতি বছর মেলায় অংশগ্রহণকারী একটি বিদেশি রাষ্ট্র ‘ফোকাল থিম’ এবং অন্য একটি রাষ্ট্র ‘সম্মানিত অতিথি রাষ্ট্র’ নির্বাচিত হয়। এবছরের থিম হয়েছে *”গ্ৰেট ব্রিটেন”*। গ্রন্থসম্ভারের পাশাপাশি শিশু, তথ্যপ্রযুক্তি ও লিটল ম্যাগাজিনের জন্য বিশেষ চত্বর নির্ধারিত থাকে।

More from BooksMore posts in Books »

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *