Press "Enter" to skip to content

ওস্তাদ আলী আকবর খান সত্যজিৎ রায়ের ‘দেবী’ ও তপন সিনহার ‘ক্ষুধিত পাষাণ’ সিনেমায় সঙ্গীত পরিচালনা করেন।……..

Spread the love

জন্মদিনের শ্রদ্ধাঃ ওস্তাদ আলী আকবর খান

বাবলু ভট্টাচার্য: ঢাকা, পৃথিবীবিখ্যাত সংগীত পরিবারের ছয় মাসের যে শিশু কিংবদন্তি পিতা সুরসম্রাট আলাউদ্দিন খাঁর কোলে চড়ে পাড়ি দিয়েছিলেন ভারতের মধ্য প্রদেশের মাইহার, বাবার কাছে তিন বছর বয়সেই সংগীতের তালিম নেন তিনি।ওস্তাদ আলী আকবর খাঁ’র পিতা সুর সম্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ ও মাতা মদিনা বেগম। পিতার কাছেই তার সঙ্গীত শিক্ষার হাতে খড়ি হয়। তিনি সব ধরনের বাদ্য যন্ত্র ও গায়কীর শিক্ষা নেন। ধীরে ধীরে তিনি সরোদে বিশেষজ্ঞ হয়ে উঠেন। ওস্তাদ আলী আকবর খান সাহেবের সঙ্গীতে হাতে খড়ি হয় তিন বছর বয়েস থেকে। কন্ঠ সঙ্গীতের শিক্ষা শুরু হয় তাঁর বাবা আচার্য আলাউদ্দিন খান সাহেবের কাছে এবং তবলা শিখতে শুরু করেন তাঁর চাচা ফকির আফতাবউদ্দিনের কাছে।

তার বাবা আরো অনেক বাদ্যযন্ত্র বাজানো শিখিয়েছেন; তবে তিনি সরোদ এবং কন্ঠ সঙ্গীতেই নিবিষ্ঠ হন। এরপর প্রায় ২০ বছর যাবৎ তাঁর শিক্ষা ও চর্চা অব্যাহত থাকে। এই শিক্ষণ প্রক্রিয়া ওস্তাদ আলী আকবর খান সাহেবের মধ্যে এমন এক সম্পদ সৃষ্টি করেছে— যা আমৃত্যু ছিল। আলী আকবর খাঁ ১৯৩৬ সালে এলাহাবাদে সর্ব প্রথম এক সঙ্গীত সম্মেলনে সঙ্গীত পরিবেশন করেন। ১৯৩৮ সালে অল ইন্ডিয়া রেডিও-এর সাথে প্রথম কাজ করেন। ১৯৪৪ সালে মাইহর ত্যাগ করেন। লাখনৌতে কিছুদিন অল ইন্ডিয়া রেডিও-এর সঙ্গীত পরিচালক হিসেবে কাজ করেন। এরপর যোধপুরের মহারাজার দরবারে সঙ্গীত শিল্পী হিসেবে নিয়োগ পান।

তিনি কয়েকটি সিনেমায় সঙ্গীত পরিচালনা করেন। এর মধ্যে সত্যজিৎ রায়ের ‘দেবী’ ও তপন সিনহার ‘ক্ষুধিত পাষাণ’ উল্লেখযোগ্য। ১৯৪৫ সালে তিনি এইচএমভির সাথে সিরিজ রেকর্ডে কাজ করেন। ১৯৫৬ সালে কলকাতায় ‘আলী আকবর কলেজ অব মিউজিক’ প্রতিষ্ঠা করেন। ১৯৬৭ সালে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার বার্কলিতে একই নামে আরেকটি কলেজ প্রতিষ্ঠা করেন— যা পরে সান রাফায়েলে স্থানান্তরিত হয়। তিনি প্রথম ভারতীয় হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রে লং প্লেয়ার অ্যালবামে রেকর্ড করেন এবং যুক্তরাষ্ট্রের টেলিভিশনে সরোদ পরিবেশন করেন। বাংলাদেশের মুক্তিসংগ্রামী জনগণের সাহায্যার্থে নিউইর্য়কের ম্যাডিসন স্কোয়ারে ১৯৭১ সালের ১ আগস্ট অনুষ্ঠিত হয় ‘দ্য কনসার্ট ফর বাংলাদেশ’। এ আয়োজনের সঙ্গে যারা সম্পৃক্ত ছিলেন তাদের অন্যতম ওস্তাদ আলী আকবর খাঁ। কনসার্টে অনেকের মধ্যে সঙ্গীত পরিবেশন করেছিলেন জর্জ হ্যারিসন, তাঁর গানের শিরোনাম ‘বাংলাদেশ’। এ গানের জন্য তৈরি হয়েছিল ‘বাংলাদেশ ধুন’ নামক নতুন সুর। ‘বাংলাদেশ ধুন’ যুগলবন্দি বাদনে রবিশঙ্করের সঙ্গে আলী আকবর খাঁ সেদিন অসাধারণ পারঙ্গমতা প্রকাশ করেন।

ওস্তাদ আলী আকবর খাঁ ১৯২২ সালের আজকের দিনে (১৪ এপ্রিল) বাংলাদেশের ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর উপজেলার শিবপুরে জন্মগ্রহণ করেন।

More from GeneralMore posts in General »

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *