Press "Enter" to skip to content

আমেরিকান নেভি ইঞ্জিনিয়ার রবার্ট পিয়েরি ১৯০৯ সালের আজকের দিনে (৬ এপ্রিল) সর্বপ্রথম উত্তর মেরুতে পা রাখেন….।

Spread the love

আজকের দিনে উত্তর মেরু জয় হয়েছিল

বাবলু ভট্টাচার্য : উত্তর মেরুর (North Pole) অন্য নাম সুমেরু। ভৌগোলিক ভাবে উত্তর মেরু হল উত্তর গোলার্ধের সেই বিন্দু যেখানে ভূপৃষ্ঠকে পৃথিবীর উত্তর এবং দক্ষিণ মেরুর কাল্পনিক সরলরেখা (যাকে পৃথিবীর অক্ষ বলা হয়) ছেদ করেছে। তবে মনে রাখতে হবে যে পৃথিবীর উত্তর মেরু বা ভৌগোলিক উত্তর মেরু আর ভূ-চুম্বকীয় মেরু দুইটি পৃথক জিনিস।

উত্তর মেরু আর্কটিক মহাসাগরের প্রায় কেন্দ্রবিন্দুতে এবং নিকটতম স্থলভাগ গ্রীনল্যান্ডের উত্তর তীর থেকে ৭০০ কিমি (৪০০ মাইল) দূরে অবস্থিত যা প্রায় সর্বদাই চলন্ত বরফ দ্বারা আচ্ছাদিত। যার কারনে বাস্তবে সুক্ষ ভাবে উত্তর মেরু সনাক্ত করা কঠিন। কেননা উত্তর মেরুতে কোন বরফের উপর আপনি দাঁড়ালে মুহর্তেই বরফ সরে গিয়ে আপনার অবস্থানের পরিবর্তন ঘটাবে। তবে হাতে কম্পাস থাকলে এবং সে অনুযায়ী সার্বক্ষনিক নিজের অবস্থার পরিবর্তন ঘটালে, ক্ষনিকের জন্য হলেও আপনি প্রকৃত উত্তরমেরুতে দাঁড়াতে পারবেন।

উত্তর মেরুতে দুইটি মৌসুম, গ্রীষ্মকাল আর শীতকাল। গ্রীষ্মকাল (১৮৭ দিন) পুরোটাই দিন আর শীতকাল (১৭৮দিন) পুরোটাই রাত। একারনে উত্তর মেরুতে সুনির্দিষ্ট কোন ঘড়ির সময় নেই এবং পৃথিবীর ন্যায় কোন টাইম জোন নেই। উত্তর মেরুতে কোন জনবসতি নেই। শীতকালে গড় তাপমাত্রা মাইনাস ৩৪ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড এবং গ্রীষ্মকালে গড় তাপমাত্রা ০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড। এখানকার প্রধান প্রাণী হল মেরুভল্লুক আর বরফের নিচে জলে থাকা কিছু মাছ।

এভারেস্ট জয়ের চেয়ে উত্তর মেরু জয়ের ইতিহাস কম রোমাঞ্চকর নয়। আমেরিকান নেভি ইঞ্জিনিয়ার রবার্ট পিয়েরি ১৯০৯ সালের আজকের দিনে (৬ এপ্রিল) সর্বপ্রথম উত্তর মেরুতে পা রাখেন।

More from InternationalMore posts in International »
More from TravelMore posts in Travel »

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *