Press "Enter" to skip to content

নোবেল শান্তি পুরস্কার পেলেন দুই সাংবাদিক”……!

ডাঃ দীপালোক বন্দ্যোপাধ্যায় : ৯ অক্টোবর ২০২১।
সাংবাদিকতা একসময় আমার পেশা থাকায় আজ গর্বে বুক ভরে উঠছে বিশ্বের সর্বোচ্চ সম্মান
” নোবেল শান্তি পুরস্কার ২০২১” দুজন অকুতোভয় সাংবাদিক পাওয়ায় ! বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে ৩২৯ জন সাংবাদিকের মধ্যে দুই সাংবাদিককে বাছাই করা হয়েছে৷  তথ্য ছাড়া পৃথিবীর অর্থ সত্য ও আস্থাবিহীন ৷ বাক স্বাধীনতা ও সংবাদ মাধ্যমের স্বাধীনতা এজন্য জরুরী ৷ ১৯০১ সাল থেকে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার দেওয়া হচ্ছে ৷ বিশ্বযুদ্ধের সময় বন্ধ ছাড়া এই পুরস্কার  দেওয়া হয়েছে ৷ যদিও বির্তক পিছু ছাড়ে নি এর রাজনীতিকরণের জন্য ৷ এপর্যন্ত ১০১ বার নোবেল শান্তি পেয়েছে ১৩৫ টি ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান ৷ যার মধ্যে ১০৭ জন ব্যক্তি এবং ২৮টি প্রতিষ্ঠান ৷ সবচেয়ে বেশি ৩ বার পেয়েছে রেডক্রস (১৯১৭,১৯৪৫ ও ১৯৬৩ সালে)৷ আর রাষ্ট্রসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা UNHCR পেয়েছে দু’বার ( ১৯৫৪ ও ১৯৮১ সালে) ৷ ২০১৮ তে পেয়েছিল WFP বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচী এবং ২০১৯ সালে ইথিওপিয়ার প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদ ৷
আর ৮৬ বছর পর এবারে সাংবাদিক কেউ শান্তিতে নোবেল পেলেন ৷ ১৯৩৫ সালে পেয়েছিলন জার্মান সাংবাদিক ৷ ২০২১-এর শান্তি পুরস্কার আমাদের মত সাংবাদিক ও মুক্ত চিন্তার মানুষদের জন্য বিশেষ অহংকারের কারণ এবারে নোবেল দেওয়া হয়েছে “মত প্রকাশের স্বাধীনতা” -র জন্য ৷শাসক ও সন্ত্রাসীদের ভয়াবহ কাজকে প্রতিকূল পরিবেশের মধ্যে সাংবাদিকদের তুলে ধরতে হয় ৷এরজন্য শুধু চোখ রাঙানি নয় ৷ খোয়াতে হয় কাজ ৷ এমনকি দিতে হয় জীবন ৷ এবারের এই সম্মাননা ঝুঁকিপূর্ণ পরিবেশে সাংবাদিকদের দায়িত্ব পালনে উদ্বুদ্ধ করবে ৷ এবারে শান্তিতে নোবেল পেলেন যৌথ ভাবে ফিলিপাইন্সের বিখ্যাত সাংবাদিক ৫৮ বছর বয়সী “মারিয়া রেসা ” ৷ একজন মহিলা হিসাবে ফিলিপাইন্সের মত দেশে শাসক প্রেসিডেন্ট রাদ্রোগো দুতার্তের ক্ষমতার অপব্যবহার , ঊর্দ্ধমুখী সহিংসতা , ক্রমবর্ধমান কর্তৃত্বপরায়ণতা ও দূর্নীতির বিরুদ্ধে কলম ধরা ভয়াবহ ঝুঁকির ৷দুতার্তে তাঁকে গ্রেপ্তার করেও আন্তর্জাতিক জনমতের চাপে ছেড়ে দিতে বাধ্য হন ৷দক্ষিণ -পূর্ব এশিয়া নিয়ে কাজের সময় তিনিই আল কায়েদার জঙ্গি যোগাযোগ , বাংলাদেশের রিজার্ভ চুরি প্রকাশ্যে আনেন ৷ মাদক ব্যবসায়ী চক্রের সব তথ্য ফাঁস করেছেন ৷এই সব কাজ করে গেছেন মারিয়া রেসা CNN ও ওয়াল স্ট্রিট জার্নালে আপোষহীন প্রতিবেদনের মাধ্যমে !১৯৮৬ সাল থেকে সাংবাদিকতায় এসে এখন তিনি “রাপলার” নামে নিউজ ওয়েব সাইট বের করেন ৷ ২০১৮ সালে মার্কিন সাময়িকী টাইমসের “বর্ষসেরা তালিকায় ” জায়গা পেয়েছিলেন ৷ প্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক রেসা আমেরিকা ও ফিলিপিইনের দ্বৈত নাগরিক ৷আবার ৫৯ বছর বয়সী “দিমিত্রি আন্দ্রেয়েভিচ মুরাতভ “নিজের দেশের পত্রিকার জন্যই দুঃসাহসী কলম ধরেছেন ৷ ক্রেমলিনের রক্তচক্ষুকে উপেক্ষা করে নির্বাচনে কারচুপি ও নেতা -মন্ত্রীদের পাহাড় প্রমাণ অবৈধ সম্পত্তি , গুম – খুন কোনকিছুকে তোয়াক্কা না করে তুলে ধরেছেন “নোভা গেজেট” বা নোভায়া গেজেটা নামের এখনকার রাশিয়ার সবচেয়ে জনপ্রিয় গণমাধ্যমে ! ২৪ বছর ধরে তরবারীর চেয়ে ধারালো তাঁর কলমই হয়ে উঠেছে রাশিয়ার প্রধান বিরোধী পক্ষ ৷
দুই দশকে তাঁদের ছয়জন সাংবাদিক খুন হয়েছেন ৷তবু , তাঁদের কলম থামে নি ৷ ক্ষমতার অপব্যবহারের শিকার মানুষের দুদর্শার কাহিনি ধারাবাহিক ভাবে ছেপেছেন ৷ এখনও তিনি নোভা গেজেটের প্রধান বার্তা সম্পাদক ৷ অবশ্য তাঁর নোবেল শান্তি পুরস্কার পাওয়ার সংবাদে রুশ সরকার অভিনন্দন জানিয়েছে ৷ সবাই যখন দূর্নীতির সঙ্গে আপোষ করে শাঁসটা খাচ্ছে ৷ সেখানে আপোষহীন গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভ সাংবাদিকতা অন্তত প্রভাব মুক্ত হোক ৷যদিও একচেটিয়া পুঁজিপতি নিয়ন্ত্রিত গণমাধ্যমের কাছে অধিকাংশ সময় সে আশা করা বৃথা ৷ তবে , আপামর জনতার সমর্থন পেলে তা অসম্ভব নয় ৷ মুক্ত , স্বাধীন ও বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতা আসলে মিথ্যা , অপপ্রচার ও ক্ষমতার অপব্যবহারের বিরুদ্ধে রক্ষাকবচ ৷সাহসী সাংবাদিকতার জন্য নরওয়েজিয় নোবেল কমিটির প্রদেয় এক কোটি সুইডিশ ক্রোনার বা ১১ লক্ষ মার্কিন ডলার মারিয়া ও মুরাতভ সমান ভাগে পাবেন ৷ উন্নত বিশ্বব্যবস্থা , বিশ্ব ভ্রাতৃত্ব ও নিরস্ত্রীকরণ হোক সাংবাদিকতার লক্ষ্য ৷তবেই ,
কলঙ্কমুক্ত রাষ্ট্র ব্যবস্থা, দূর্নীতিমুক্ত সমাজ ও প্রশাসন তবেই গড়ে উঠতে পারে ৷

More from GeneralMore posts in General »
More from InternationalMore posts in International »
More from LifestyleMore posts in Lifestyle »

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *