Press "Enter" to skip to content

সুস্থ ও রোগমুক্ত থাকতে কাঁচা ও পাকা পেঁপে প্রতিদিনের খাওয়ার মেনুতে থাকা একান্ত জরুরি…….।

মধুমিতা শাস্ত্রী : ৩০, ডিসেম্বর, ২০২০। আমাদের অতিপরিচিত ফলগুলির মধ্যে অন্যতম হল পেঁপে। এটি কাঁচা সবজি হিসেবে খাওয়া যায় আবার পাকা ফল হিসেবেও খাওয়া যায়। পেঁপে প্রায় সারাবছর পাওয়া যায় এবং সহজলভ্য। এর দামও সাধারণ মানুষের সাধ্যের মধ্যে। পেঁপের বৈজ্ঞানিক নাম carica papaya। এটি carivaceae পরিবারের সদস্য। কাঁচা ও পাকা খাওয়া যায় যে সব ফলগুলি তাদের মধ্যে একদম প্রথম সারিতে রয়েছে পেঁপে। এর অনেক ভেষজ গুণ আছে। পেঁপের আয়ুর্বেদিক নাম অমৃততুম্বী।

পেঁপে গাছ ছোটো আকৃতির হয় এবং অশাখ বৃক্ষ বিশেষ। লম্বা বোঁটাযুক্ত ছত্রাকার পাতা বেশ বড় হয়। কান্ডের উপরি অংশে পাতাগুলি সজ্জিত থাকে। কাঁচা অবস্থায় ফল সবুজ থাকে পাকলে হলুদ বা পীত বর্ণের হয়। প্রায় সারাবছর ফুল ও ফল হয়।

উপাদানঃ- পেঁপেতে আছে আমিষ, স্নেহ পদার্থ, খনিজ পদার্থ, ফাইবার, শর্করা, ভিটামিন সি, সোডিয়াম, পটাসিয়াম, আয়রন, খাদ্যশক্তি। পেঁপেতে ক্যালোরির পরিমাণ খুব কম।

কাঁচা পেঁপের উপকারীতাঃ-

(১) সুগার কমায়ঃ- কাঁচা পেঁপের জুস বা কাঁচা পেঁপে রক্তে সুগারের পরিমাণ কমায় এবং শরীরে ইনসুলিনের পরিমাণ বাড়ায়। তাই যাদের সুগার আছে পেঁপে খাওয়া খুব উপকারী।
(২) কিডনির সমস্যা দূর করেঃ- কিডনির সমস্যা দূর করতে যে যে উপাদানগুলি প্রয়োজন যেমন পটাসিয়াম, ভিটামিন-এ, ম্যাগনেশিয়াম, ভিটামিন সি, ভিটামিন ই সবই রয়েছে কাঁচা পেঁপেতে। কিডনির সমস্যাতে কাঁচা পেঁপে খাওয়া খুব উপকারী।
(৩) পাকস্থলী ভালো রাখতেঃ- গ্যাস, অ্যাসিডিটি থেকে বাঁচতে হলে অবশ্যই কাঁচা পেঁপে খান। এটি একটি আঁশযুক্ত ফল। তাই হজমে সহায়তা করে। আমাদের হজম প্রক্রিয়াকে ভালো রাখে। ফলে পাকস্থলী সুস্থ থাকে।
(৪) কৃমি নাশকঃ-

পাকা পেঁপের উপকারীতাঃ

(১) দৃষ্টি শক্তিকে ভালো রাখেঃ- পেঁপেতে আছে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট, ভিটামিন এ, ভিটামিন সি ও ই। এইসব ভিটামিন থাকার ফলে বয়স জনিত কারণে চোখের যে সব সমস্যা হয় তা থেকে রক্ষা করে। এতে থাকা বিটাক্যারোটিন দৃষ্টি শক্তি ভালো রাখে।
(২) হার্ট অ্যাটাক রুখে দেয়ঃ- পাকা পেঁপেতে আছে উচ্চ মাত্রায় ফাইবার। এছাড়া এতে ভিটামিন এ, সি ও ই এগুলি কোলেস্টেরল প্রতিরোধে সহায়তা করে। ফলে হার্ট ভালো থাকে।
(৩) কোষ্ঠ-কাঠিন্য থেকে রক্ষা পেতেঃ- পাকা পেঁপে পাকস্থলীর অতিরিক্ত অ্যাসিড দূর করে। যারা কোষ্ঠ-কাঠিন্যতে ভুগছেন তাদের জন্য খুবই উপকারী। এছাড়া পেঁপে খেলে মুখে রুচি আসে।
(৪) রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়ঃ- পেঁপেতে আছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। এটি দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। সুস্বাস্থের জন্য শরীরে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট অপরিহার্য।
(৫) চুল ও ত্বকের যত্নে পাকা পেঁপেঃ- চুল ও ত্বকের যত্নে পেঁপে অত্যন্ত উপকারী। যে কারণে রূপচর্চায় পেঁপে ব্যাবহার করা হয়। পেঁপে খেলে চুল ও ত্বক যেমন ভেতর থেকে ভালো হয় আবার এটির ব্যাবহারে ভালো উপকার পাওয়া যায়। পেঁপে ত্বকে লাগালে ত্বক মশৃণ ও উজ্জ্বল হয়। এটি ত্বকের বলিরেখা দূর করে ত্বকের বয়স কমায়।

এতে আছে প্যাপাইন এনজাইম যা মুখের গর্ত সারাতে সাহায্য করে। রোদে পোড়া দাগ, হাঁটু ও কনুইয়ের কালো দাগ তুলতে সক্ষম পেঁপে।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.