Press "Enter" to skip to content

শিশুদের আনন্দ ফিরিয়ে দিতে স্বাভাবিক হচ্ছে বিধান শিশু উদ্যান….। 

মোল্লা জসিমউদ্দিন : কলকাতা, ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২২। দীর্ঘদিন মারণ ভাইরাস করোনা আবহে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সহ ছোটদের বিভিন্ন ধরণের পাঠক্রম বহির্ভূত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোও বন্ধ ছিল। সম্প্রতি রাজ‍্য সরকার করোনাবিধি সাপেক্ষে সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো খুলে দিয়েছে। এরফলে ছাত্রছাত্রীরা আবার তাদের স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসছে। গত ১৯ ফেব্রুয়ারি থেকে  অভিভাবকদের সঙ্গে আলোচনা করে রাজ‍্যসরকারের সমস্ত  করোনাবিধি মেনে বিধান শিশু উদ‍্যানে বাচ্চাদের জন‍্য শিক্ষণীয় সমস্ত বিভাগগুলো খুলে দেওয়া হল। নাচ, গান, আবৃত্তিসহ  যোগব‍্যায়াম, আ‍্যাথলেটিক্স, তাই-কোন-ডু, টেবিল টেনিস, ক্রিকেট এবং রোলার স্কেটিং বিভাগগুলোও খুলে দেওয়া হয়েছে। ইয়াস ঝড়ে  সাঁতারের পুলটি ব‍্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। পুলের ফিল্টার প্ল‍্যান্টটির প্রতিটি অংশ চুরি হয়ে গিয়েছে। সুইমিং পুলের পাম্পসহ সমস্ত জলের লাইনগুলোও নেই চোরেদের জন্য। এই অবস্থা থেকে সুইমিং পুলটি সম্পূর্ণ সংস্কার করে ব‍্যবহারযোগ‍্য করে তুলতে কিছুটা সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন বিধান শিশু উদ্যানের সম্পাদক গৌতম তালুকদার। গত রবিবার বিধান শিশু উদ‍্যানে বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি ছিল নজরকাড়া। করোনা পরিস্থিতিতে দীর্ঘদিন প্রায় ঘরবন্দি  থাকার পর বাচ্চারা যেভাবে উদ‍্যানের খোলা আকাশের নীচে নাচ, গান, আবৃত্তি, খেলাধুলায় মেতে উঠলো তাতে তাদের মানসিক চাপ যে অনেকটাই কমেছে একথা বলার অপেক্ষা রাখে না। এই ধরনের পাঠ‍্য বহির্ভূত কার্যক্রমে নিয়মিত অংশগ্রহণ করলে ধীরে ধীরে বাচ্চাদের শারীরিক এবং মানসিক স্বাস্থ্যের উন্নতি হবে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। অভিভাবকরা বিধান শিশু উদ‍্যানে উপস্থিত হয়ে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ মতামত দিয়েছেন। তাঁদের প্রস্তাব অনুযায়ী সিদ্ধান্ত হয়েছে – বড়দের জন‍্য শ্রুতিনাটক, আবৃত্তি এবং ব‍্যায়ামের নতুন বিভাগ খোলা হবে। এর পাশাপাশি তাঁদের নাচের ক্লাসটিও আবার শুরু হবে। ছোটোদের পাশাপাশি তাদের বাবা মায়েরাও সক্রিয়ভাবে বিধান শিশু উদ‍্যানের বিভিন্ন কাজে অংশগ্রহণ করুক বলে চাইছে বিধান শিশু উদ্যান কর্তৃপক্ষ ।

More from SocialMore posts in Social »
More from SportMore posts in Sport »

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.