Press "Enter" to skip to content

ভারতর্ষের সবাক চলচ্চিত্রের মহিলা পরিচালিকা হয়ে উঠলেন এই মঞ্জু দে। নিজের পরিচালনায় বানালেন প্রথম ছবি, ‘স্বর্গ হতে বিদায়’……।

জন্মদিনে স্মরণঃ মঞ্জু দে

বাবলু ভট্টাচার্য : আজাদ হিন্দ ফৌজের সেনারা ছাড়া পেয়েছেন ব্রিটিশ কারাগার থেকে। তাঁদের সংবর্ধনা দেয়া হয় দেশপ্রিয় পার্কে। ভলান্টিয়ার্স দলে ছিলেন মঞ্জু দে। গার্ড অফ অনার দিয়েছিলেন যে মেয়েরা, তাঁদের লিড করেন মঞ্জু।

এই প্যারেডে দেখেই পরিচালক সুশীল মজুমদার ইন্দ্রপুরী স্টুডিওতে ডেকে নিয়েছিলেন মঞ্জু দে-কে। তাঁর সেদিনের প্যারেডের একটা অংশ রেকর্ডও করে রেখেছিলেন সুশীল। পরে ‘সিপাহী কে সপনা’ ছবিতে সুশীলবাবু এই দৃশ্যটি ব্যবহার করেন। মঞ্জুর প্রথম ফিল্মে অভিনয় হিসেবে থেকে যায় এই হিন্দি ছবিটিই।

মঞ্জু দে সেসময় কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমএ পাশ করা নায়িকা। তিনি মোটর রেসিংয়ে প্রথমা। এমনকি ক্রিকেট খেলাতেও পারদর্শী ছিলেন।

পরে তাঁর বিয়ে হয় দেবব্রত দে-র সঙ্গে। শ্বশুর ক্ষেমেন্দ্র চন্দ্র দে’র ইচ্ছাতেই মঞ্জু পুরোদমে ফিল্মে কাজ করেত শুরু করেন। হেমেন গুপ্তর ‘বিয়াল্লিশ’ ছবিতে প্রথম শ্যুট।

তবে তার আগেই রিলিজ করে তাঁর অভিনীত বাংলা ছবি ‘জিঘাংসা’।

এসবের মধ্যেই ফিল্ম লাইনে মঞ্জু প্রেমে পড়লেন তপন সিনহার। তপন সিনহার প্রথম দিকের প্রায় সব ছবিই মঞ্জু দে-র টাকায় তৈরি হয়।

তপন সিনহার ‘উপহার’, ‘টনসিল’, ‘কাবুলিওয়ালা’, ‘লৌহকপাট’– সব ছবিতেই ছিল মঞ্জুর হাতের স্পর্শ। কিন্তু অনেক বড় পরিচালক হিসেবে খ্যাতি পেয়ে গিয়ে, একসময়ে মঞ্জুর প্রয়োজন হয়তো ফুরিয়ে যায় তপন সিনহার কাছে। এ ধাক্কা সহ্য করতে পারেননি মঞ্জু। তাঁর নিজের সংসারও ভাঙছিল।

এ সময়ে তিনি মন দিলেন ছবি পরিচালনায়। এবং ভারতর্ষের সবাক চলচ্চিত্রের মহিলা পরিচালিকা হয়ে উঠলেন এই মঞ্জু দে। নিজের পরিচালনায় বানালেন প্রথম ছবি, ‘স্বর্গ হতে বিদায়’। এরপর ‘অভিশপ্ত চম্বল’। দস্যুরানী পুতলীবাইয়ের ভূমিকায় নিজেই অবতীর্ণ হলেন। ‘সজারুর কাঁটা’ শেষ পরিচালিত ছবি।

অনেকে বলেন, বিরাট মাপের প্রতিভা নিয়ে এসেছিলেন মঞ্জু দে। সঠিক ভাবে তাঁর প্রতিভার ব্যবহার হয়নি।

শেষ জীবনে প্রেমে আঘাত পেয়ে এক সাধুবাবার পাল্লায় পড়েছিলেন তিনি। তাঁকেই দান-ধ্যান করে দিয়েছিলেন ওঁর যা ছিল। নির্বান্ধব অবস্থায় চলেও গেলেন মাত্র ৬৩ বছর বয়সে।

নায়িকা থেকে পরিচালিকা তিনিই প্রথম। সেই পথেই পরে হেঁটেছেন অপর্ণা সেন, চূর্ণী গাঙ্গুলিদের মতো প্রতিভাবানরা।

১৯৮৯ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর মাত্র ৬৩ বছর বয়সে কলকাতায় মঞ্জু দে মৃত্যুবরণ করেন।

মঞ্জু দে ১৯২৬ সালের আজকের দিনে (৭ মে) মুর্শিদাবাদের বহরমপুরে জন্মগ্রহণ করেন।

More from GeneralMore posts in General »

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.