Press "Enter" to skip to content

বাঙালি দম্পতির বিশ্বজয়,এই প্রথমবার কোলকাতা থেকে সাইবেরিয়া যাত্রা গাড়ি চালিয়ে…..।

সুজিৎ চট্টোপাধ্যায়/ গোপাল দেবনাথ : কলকাতা, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১। কবি সত্যেন্দ্রনাথ দত্ত কবেই লিখেছেন, “আমাদের ছেলে বিজয় সিংহ লঙ্কা করিল জয়, সিংহল নামে রেখে গেছে নিজ শৌর্যের পরিচয়”। একজন খাঁটি বাঙালি অতীশ দীপঙ্কর তাঁর জ্ঞান ও প্রজ্ঞা নিয়ে পৌঁছে যান তিব্বত থেকে মালয়েশিয়া পর্যন্ত সেই কোন যুগে। ইতিহাস বলে, বাঙালির রক্তে আছে বৈচিত্র্য। ভবঘুরে বহু সম্প্রদায়ের মিশ্রণেই বং সংস্কৃতি। সেই জিন প্রবাহকাল থেকে রয়েছে ।

সেই ট্র্যাডিশন সমানে চলেছে। প্রবাদ বলে, বাঙালির পায়ের তলায় সর্ষে। সেই ভ্রমণ কখনও নিছক মজার। কখনও রোমাঞ্চকর, বিপদসঙ্কুল। বিভূতিভূষণের চাঁদের পাহাড়ের নায়ক অভিনেতা ও সাংসদ দেবের সুবাদে বঙ্গতনয় শঙ্কর রায়চৌধুরীকে আজ কে না চেনে?
বাঙালি দম্পতি কৌশিক রায় ও ডাঃ দেবাঞ্জলি রায় এমনই দুটি নাম। ইতিমধ্যেই এঁরা বিশ্বের ৩৬ টি দেশের প্রায় ৪২ হাজার কিলোমিটার পথ অতিক্রম করেছেন গাড়ি নিয়ে। সময়টা ২০১৮ থেকে ২০১৯ এর মধ্যে। করোনা অতিমারী আবহে ২০২০ কেটেছে সংশয়ে। অতিমারি অবস্থার কিছুটা উন্নতি হতেই আবার তাঁরা প্রস্তুত পরবর্তী অভিযানের জন্য।

এবার লক্ষ্য পূর্ব থেকে পশ্চিম দিল্লি থেকে রাশিয়ার সাইবেরিয়ার ১১হাজার কিলোমিটার। অভিযানের নামকরণ হয়েছে ট্রান্স সাইবেরিয়ান রোডসি। যাত্রা শুরু আগামী মাসের ৯ই অক্টোবর। যদিও দিল্লি থেকে যাত্রা শুরু, কিন্তু কোলকাতা থেকে রাজ্যের প্রাক্তন পরিবহনমন্ত্রী , বিধায়ক, ও অটোমোবাইল অ্যাসোসিয়েশন অফ ইস্টার্ন ইন্ডিয়ার প্রাণপুরুষ মদন মিত্র আনুষ্ঠানিক ফ্ল্যাগ অন করবেন। ভারত সরকার ও রাশিয়ান সরকারের যৌথ সৌজন্যে এই অভিযানের ঘোষণা হলো কোলকাতা প্রেস ক্লাবে। উপস্থিত ছিলেন কলকাতার রাশিয়ান দূতাবাসের আধিকারিক এবং মদন মিত্র। রাশিয়ান প্রশাসনের পক্ষে আধিকারিক জানালেন, ভারত ও রাশিয়ার ৫০তম টিট্রী অফ পিস দুদেশের সংস্কৃতি আদান প্রদানের কাজ করে।সেক্ষেত্রে এই অভিযান দুদেশের মানুষের মেলবন্ধন ঘটাবে। মদন মিত্র বলেন, এই বাঙালি দম্পতির সাহসিকতার নিদর্শন মিলেছে আগেই। এবার এঁরা সাইবেরিয়া যখন পৌঁছবেন, তখন সেখানে তাপমাত্রা হবে মাইনাস ৫০ডিগ্রি প্রায়। ৮জন অভিযাত্রীর মধ্যে থাকছে দেড় বছর বয়সী এক শিশুও। রোড সির সহ প্রতিষ্ঠাতা ডাঃ দেবাঞ্জলি রায় জানান, গত অভিযানে প্রতিদিন প্রতি মুহূর্তে  মদন মিত্র খোঁজ নিয়েছেন পারিবারিক সদস্যের মতো।

এবারেও তাঁর ঐকান্তিক সহযোগিতা পাচ্ছি। মুখ্যমন্ত্রীর সেভ ড্রাইভ সেভ লাইভ স্লোগানকে বিশ্বময় ছড়িয়ে দিতে আমরা অঙ্গীকারবদ্ধ। রাজ্য সরকার, ব্যক্তিগত ভাবে মুখ্যমন্ত্রী, রাজ্যের মানুষ ও সংবাদমাধ্যমের সহযোগিতাও আমাদের উৎসাহ যোগাবে। সাংবাদিক সম্মেলনের শেষে জানানো হয়, আগামী ২০২২ এ কলকাতা লন্ডন বাস যাত্রার প্রেক্ষিতে এই দম্পতি গাড়ি নিয়ে লন্ডন যাবেন।

নিউজ স্টারডম এর পক্ষ থেকে আগাম শুভেচ্ছা রইলো।

More from GeneralMore posts in General »

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.