Press "Enter" to skip to content

কলকাতা প্রেস ক্লাবে শারদ সেরা শিরোপা ২০২২ এর পোস্টার এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন…..।

নিজস্ব প্রতিনিধি : কলকাতা, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২২। করোনা মহামারীর যন্ত্রণা কাটিয়ে আবার ও স্বমহিমায় ফিরতে চলেছে  আমাদের দুর্গাপুজো। দুর্গাপূজোতে ঘিরে থাকি কেনাকাটা থাকে, ঠাকুর দেখা থাকে, বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে ঘুরে থাকে খাওয়া দাওয়া সেইসাথে মন প্রাণ খোলা আনন্দ। প্রথম দিকে এই পুজোর সাবেকি  রূপে থাকলেও ধীরে ধীরে থিম পুজো নিজের জায়গা করে নিয়েছে। শিল্পীরা নিজের নিজের ভাবনা, নিজের আঙ্গিক এবং বর্তমান সময়ে বিভিন্ন ঘটে যাওয়া বিষয় নিয়ে প্যান্ডেল তৈরি করছেন। শুধুমাত্র প্যান্ডেলই নয় তার সাথে প্রতিমায় আসছে অভিনবত্ব, থাকছে থিমের ছোঁয়া। প্যান্ডেল এবং প্রতিমার সাথে জুড়ছে আলোকসজ্জা। যা ছাড়া প্যান্ডেল অর্থহীন।
এই প্রতিমা প্যান্ডেল তার শিল্পকর্ম আলোকসজ্জা কিছু নিয়ে প্রতিযোগিতা ।

ফ্রেন্ডস মিডিয়া অ্যান্ড এন্টারটেইনমেন্ট প্রাইভেট লিমিটেড এবং ইনার আই উদ্যোগ নিল কলকাতা এবং পার্শ্ববর্তী অঞ্চলের সেরা পুজোকে পুরস্কৃত করার জন্য। তাই তারা এই বছর প্রথম শারদ সেরা শিরোপা ২০২২ নিয়ে এলো। যেখানে পুরস্কৃত হবে এই শহরের সেরা সেরা পুজোগুলি কে।

গতকাল ২১ সেপ্টেম্বর কলকাতা প্রেস ক্লাবে শারদ সেরা শিরোপা ২০২২ এর পোস্টার এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হলো। ব্যানারগুলি প্রদর্শিত হবে শহরের বিভিন্ন পূজা মন্ডপে। বিচারকদের বিচারে অংশগ্রহণকারী পূজা মন্ডপ থেকে সেরা ১০ টি পুজোকে শেষ পর্যায়ে বেছে নেওয়া হবে। বিচারক মন্ডলীতে থাকবেন সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রের স্বনামধন্য ব্যক্তিত্ব।

যে দশটি বিষয় সেরার সেরা কে খোঁজা হবে সেগুলি হল শ্রেষ্ঠ পুজো, শ্রেষ্ঠ উপস্থাপনা, সেরা মণ্ডপ, সেরা প্রতিমা, নব উদ্ভাবন , সেরা পরিবেশবান্ধব পুজো, বাংলা সংস্কৃতি, নব দিগন্ত, সেরা ব্যবস্থাপনা এবং সমাজ সচেতনতা।

এই সাংবাদিক সম্মেলন  উপস্থিত ছিলেন, পন্ডিত মল্লার ঘোষ, প্রযোজক রাজিব গোলচা, বিভেলের অপারেশন হেড সুরজিৎ সরকার এবং ম্যানেজার চৈতালি দাস, লেখক এবং সমাজ কর্মী অনির্বাণ মিত্র, ইনার আই এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর স্বস্তিকা রায়, ফ্রেন্ডস মিডিয়া অ্যান্ড এন্টারটেইনমেন্ট প্রাইভেট লিমিটেডের ডিরেক্টর জে এম নাথ এবং শুভজিৎ বোস , সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব কুনাল সাহা ।

আয়োজকদের তরফ থেকে জানা গেছে কলকাতা এবং পার্শ্ববর্তী অঞ্চলের প্রায় একশোটা পুজো নিয়ে তারা এই প্রতিযোগিতা করছে। এই প্রতিযোগিতার কোন প্রবেশ মূল্য নেই। এই ১০০ টা পুজো থেকে প্রাথমিক পর্যায়ে  ত্রিশটি এবং সেখান থেকে দশটি সেরা পুজো প্যান্ডেল কে বেছে নেবে তারা।

More from GeneralMore posts in General »
More from InternationalMore posts in International »
More from SocialMore posts in Social »

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.