Press "Enter" to skip to content

আয়োজকদের ক্ষমা চাইতে হবে প্রবীরের কাছে, তা না হলে আমরা কেউ পুরস্কার গ্রহণ করবো না! আয়োজকরা এসে অনুপদার কাছে ক্ষমা চাইলেন! অনুপদা বললেন, আমাকে না মাইক এ গিয়ে প্রবীরের কাছে ক্ষমা চাইতে হবে ! ওনারা তাই করলেন!……

প্রবীর রায় : বিশিষ্ট অভিনেতা, প্রযোজক ও চিত্র পরিচালক। ১২, ফেব্রুয়ারি,২০২১। আজ সকালে তারিখটা দেখে (১২. ২. ২০২১), হঠাৎ ১৯৯৫ সালের একটা ঘটনার কথা মনে পরে গেলো ! আজকের দিনে আমি, দেবরাজ রায় পরিচালিত “শব্দজব্দ” ধারাবাহিকে শ্রেষ্ট অভিনেতার “চিত্রাচার্য প্রমথেশ পারিতোষিক ১৯৯৫” পুরস্কার পেয়েছিলাম ! পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানটা হয়েছিল রবীন্দ্রসদন প্রেক্ষাগৃহে ! আমার শ্রেষ্ট অভিনেতার পুরস্কার পাওয়া কিন্তু আসল ঘটনা না !
ঘটনাটা বলতে গিয়ে আজও চোখে জল এসে যায় ! সেদিন Anchor ছিলেন বৈশাখী মজুমদার (বিখ্যাত প্রযোজক রথীন মজুমদারের মেয়ে) !

উপস্থিত ছিলেন অনেক নামকরা অভিনেতা , অভিনেত্রী , পরিচালক, প্রযোজক ! যাঁরা পুরস্কার পাচ্ছেন , তাদের কিছু বলতে বলা হচ্ছে ! আমাকেও কিছু বলতে বলা হলো, যখন আমার নাম ঘোষণা করা হলো “শ্রেষ্ট অভিনেতা” হিসেবে ! আমি খুব পরিচিত অভিনেতা নই , তাই দর্শক আসন থেকে আওয়াজ হলো “না না কিছু বলতে হবে না” !
আমি বলতে উঠেও অপ্রতিভ হয়ে আবার বসে পড়লাম ! অদ্ভুত এক নিস্তব্ধতা ! হঠাৎ অনুপদা অভিনেতা (অনুপকুমার) দাঁড়িয়ে উঠে মাইকের সামনে গিয়ে বললেন, “কে বললো কথাটা ” দর্শকাসন চুপ ! অনুপদা বললেন যিনি বা যাঁরা এই কথা বলেছেন , তাঁদের এবং আয়োজকদের ক্ষমা চাইতে হবে প্রবীরের কাছে , তা না হলে আমরা কেউ পুরস্কার গ্রহণ করবো না !

আয়োজকরা এসে অনুপদার কাছে ক্ষমা চাইলেন ! অনুপদা বললেন , আমাকে না মাইক এ গিয়ে প্রবীরের কাছে ক্ষমা চাইতে হবে ! ওনারা তাই করলেন ! আমি হাতজোড় করে বললাম ঠিক আছে !
অনুপদা বললেন “প্রবীর , যাও তোমার বক্তব্য বলো !” এবার যখন আমি উঠলাম, হাততালিতে ভোরে গেলো পুরো প্রেক্ষাগৃহ ! এখনো আমার চোখ জলে ভেসে গেছে !


ভাবা যায় আজকের দিনে একটা নতুন অভিনেতার প্রতি, এই ভালোবাসা, সম্মান দেখানো অনুপকুমাকে মতো অভিনেতার !! অনেক অনেক শ্রদ্ধা ও প্রণাম অনুপদা !

More from GeneralMore posts in General »

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.