১৯ ফেব্রুয়ারি কলকাতায় মানবিকতার ডার্বি

গোপাল দেবনাথ/ সুজিৎ চট্টোপাধ্যায়:১৩ই ফেব্রুয়ারি ২০২০ ডাইনোসর হারিয়ে গেছে। টিকে গেছে আরশোলা। অস্তিত্ব রক্ষার লড়াইতে পৃথিবীর বুক থেকে হারিয়ে গেছে বহু খেলা। কিন্তু আড়াই হাজার বছর আগে চিনে যে ফুটবল এর আবিষ্কার, আজও তা বিশ্ব জুড়ে জনপ্রিয়। ভারতে যার শুরু ১৮৭২সালে।

এই কলকাতায়। তাই ভারতে ফুটবলের মক্কা বলা হয় কলকাতাকেই। কিন্তু সেই রাম নেই। অযোধ্যাও নেই। তবু কলকাতার মাটিতে ফুটবল খেলার ইচ্ছে নিয়ে প্রতি মরশুমে দেশের ও বিদেশের বহু ফুটবল প্রতিভা ছুটে আসেন অনেক স্বপ্ন নিয়ে।
এমনই এক ফুটবল প্রতিভা কেরালার ভূমিপুত্র ধনরাজন। কেরলের বিখ্যাত কোচ টি কে চাত্তুনি র কাছে ফুটবলের দীক্ষা। উদীয়মান ফুটবলার রাধাকৃষ্ণন ধনরাজন কলকাতায় এসে প্রথম খেলেন ইউনাইটেড স্পোর্টস এ।

তারপর সর্দান সমিতি। এরপর স্বপ্নের স্বপ্নপূরণ। মোহনবাগান, ইস্টবেঙ্গল ও মহমেডান। এর পর ফিরে যান নিজের রাজ্য কেরলে। ২০১৯ এর ৩০ ডিসেম্বর পেরিনদেলমান্নায় স্থানীয় একটি সেভেন এ সাইড ম্যাচ খেলেছিলেন। হঠাৎ বুকে ব্যাথা। মাঠেই লুটিয়ে পড়লেন। নিয়ে যাওয়া হলো হাসপাতাল।কিন্তু মাঠের লড়াই করা সৈনিক হার মানলেন জীবনযুদ্ধে। চলে গেলেন অকালে। কেরল থেকে সতীর্থ এসেছিলেন ফুটবলার ডেন সন দেবদাস।

তারই উদ্যোগে বেনিফিট ম্যাচের উদ্যোগ নেন আই এফ এ সচিব জয়দীপ মুখোপাধ্যায়। আয়োজক ইনকাম ট্যাক্স স্পোর্টস অ্যান্ড রিক্রিয়েশন ক্লাব। এই সংগঠনের ৭৫ বছর পূর্তি চলছে এবছর। সংগঠনের পক্ষে গৌতম মন্ডল তাই বলেন, ক্রীড়াপ্রেমী প্রতিটি মানুষের মধ্যে মানবিকতা ও আবেগ আছে। তাই তাঁরা খেলা ও খেলোয়াড়দের ভালোবাসেন। ধনরাজনের এই অসময়ে চলে যাওয়া আমাদের মনকে ব্যাথিত করেছে।

আমরা তাই এই মহান উদ্যোগে নিজেদের সামিল করাটা নৈতিক দায়িত্ব মনে করেছি। বুধবার কলকাতার আয়কর দপ্তরের মূল ভবনে সাংবাদিক সম্মেলনে ঘোষিত হলো প্রয়াত ধনরাজন স্মরণে আই এফ এ একাদশ বনাম ইনকাম ট্যাক্স স্পোর্টস অ্যান্ড রিক্রিয়েশন ডার্বি ম্যাচের কথা। খেলা হবে মহমেডান ক্লাবে বেলা দুটোয়। মোট দুহাজার টিকিট ছাপা হয়েছে। হাজার টিকিট বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকা মুল্যে। বাকি হাজার টিকিট পাঁচশ টাকা মূল্যের। আদায়কৃত পুরো টাকাটা ধনরাজনের কন্যা যে এই অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি তার হাতে তুলে দেওয়া হবে।

টিকিট মিলছে ধর্মতলার আয়কর দপ্তরে এবং আই এফ এ র অনলাইনে। ধনরাজনের ৯ জনের পরিবারে তিনিই ছিলেন একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি। এই মুহূর্তে অসহায় পরিবার। স্ত্রী অর্চনা একমাত্র আড়াই বছরের মেয়ে। মাত্র ৩৯বছর বয়সী এই ফুটবলারের আকল প্রয়াণে এগিয়ে এসেছে খেলোয়াড়দের সংগঠন। এই সংগঠনের পক্ষে সাংবাদিক সম্মেলনে হাজির রহিম নবী এবং মেহতাব বলেন,আমরা ফুটবলপ্রেমীদের কাছ থেকে অনেক পেয়েছি।

এখন দিতে হবে। ইতিমধ্যে আমরা এমন দুঃখজনক ঘটনায় অর্থ তুলে দিয়েছি। আগামী দিনে শুধু খেলার জগতের মানুষদের জন্য শুধু নয় ,সাধারণ মানুষদের পাশেও দাঁড়াতে চাই। কলকাতায় আসছেন কোচ চাত্তুনি, নিয়ে আসছেন প্রয়াত খেলোয়াড়ের স্ত্রী কন্যাকে। এই ডার্বিতে দুই পক্ষে মাঠে নামবেন ব্যারাটো, দিপেন্দু বিশ্বাস, আলভিটো, নবী, মেহতাব, অভিজিৎ মন্ডল, জয়ন্ত সেন, অভ্র মন্ডল, শিল্টন পাল, অর্ণব মন্ডল, প্রীতম কোটাল, দেবজিত ঘোষ, লালকমল ভৌমিক, অসীম বিশ্বাস এবং প্রয়াত ধনরাজনের সতীর্থ ডেনসন দেবদাস।

এছাড়াও ক্রিকেটার অশোক দিন্দা, মনোজ তেওয়ারি ও লক্ষ্মী রতন শুক্লাও ফুটবল খেলবেন। আই এফ এ র কোচ বিকাশ পাঁজি এবং ইনকাম ট্যাক্স একাদশের কোচ গোবিন্দ ঘোষ। এই খেলায় যেই জিতুক আসলে জিতবে খেলোয়াড়সুলভ মানবিকতা।

বাংলার ফুটবল প্রেমী মানুষ মাঠ ভরিয়ে জানান দেবে খেলার কদরের পাশাপাশি খেলোয়াড়দের সঙ্গেও থাকে বাংলার মানুষের আত্মিক যোগ। এমনটাই আশা করেন আই এফ এ র সচিব জয়দীপ মুখোপাধ্যায়।

এই সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় অলিম্পিয়ান সুস্মিতা সিংহ রায়, পর্বতারোহী দেবাশীষ বিশ্বাস, ইনকামট্যাক্স কমিশনার গৌতম মন্ডল, ফুটবলার মেহতাব হোসেন এবং রহিম নবি।

Leave a Reply

Your e-mail address will not be published. Required fields are marked *