বাংলা চলচ্চিত্র জগতের ইতিহাসে এক উজ্জ্বল নক্ষত্র ধীরেন্দ্রনাথ গঙ্গোপাধ্যায়(ডি জি)

বাবলু ভট্টাচার্য: ঢাকা, বাংলা চলচ্চিত্র জগতের ইতিহাসে এক উজ্জ্বল নক্ষত্র ধীরেন্দ্রনাথ গঙ্গোপাধ্যায়। ধীরেন গাঙ্গুলী বা ডি.জি নামেও পরিচিত। তিনি একাধারে চলচ্চিত্র প্রযোজক, নির্দেশক, অভিনেতা ও লেখক/চিত্রনাট্যকার। শান্তিনিকেতনের ছাত্র ছিলেন ধীরেন গাঙ্গুলী। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের এক দুঃসম্পর্কের আত্মীয়াকে বিয়ে করেন। তিনি হায়দ্রাবাদের ‘স্টেট আর্ট স্কুল’-এর প্রধান শিক্ষক ছিলেন। মেক-আপ-এর কাজে তাঁর দক্ষতা ছিল। বাংলা সিনেমার দিকপাল পরিচালক ধীরেন গাঙ্গুলী। তিনি ছিলেন এক বর্ণময় চরিত্র ও বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী।

ডি.জি’র ফটোগ্রাফির বই তাঁকে জামশেদজি ফ্রেমজি ম্যাডানের সান্নিধ্যে নিয়ে আসে। ম্যাডান এরপর ডি.জি’র তৈরি চলচ্চিত্র প্রযোজনা করতে রাজি হন। তিনি ১৯১৮ সালে প্রথম বাঙালি মালিকানার চলচ্চিত্র নির্মাণকারী সংস্থা “ইন্দো-ব্রিটিশ ফিল্ম কোম্পানী” স্থাপন করেন। এই কোম্পানীর প্রথম ছবি “বিলাতফেরত” মুক্তি পায় ১৯২১ সালে। পরবর্তীকালে তিনি নিউ থিয়েটার্সে যোগদান করেন। ধীরেন গাঙ্গুলী অভিনীত চলচ্চিত্র সমূহঃ বিলাতফেরত, শেষ নিবেদন, বন্দিতা, মরণের পরে, পঞ্চশর, অলীকবাবু, শঙ্করাচার্য, সাধু আউর শয়তান প্রভৃতি ছবিতে। পরিচালনা করেছেনঃ কার্টুন, শেষ নিবেদন, শৃঙ্খল, দাবী, আহুতি, দ্বীপান্তর, বিদ্রোহী, চরিত্রহীন, ইন্দ্রজিৎ, হরগৌরী প্রভৃতি চলচ্চিত্র।

১৯৭৪ সালে পেয়েছেন পদ্মভূষণ। ১৯৭৫ সালে লাভ করেন দাদা সাহেব ফালকে পুরস্কার।

১৯৭৮ সালের ১৮ নভেম্বর কলকাতায় ধীরেন গাঙ্গুলীর মৃত্যু হয়।

ধীরেন্দ্রনাথ গঙ্গোপাধ্যায় (ডি জি) ১৮৯৩ সালের আজকের দিনে (২৬ মার্চ) কলকাতায় জন্মগ্রহণ করেন।

Leave a Reply

Your e-mail address will not be published. Required fields are marked *